আজ শুক্রবার| ১০ই জুলাই, ২০২০ ইং| ২৬শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
আজ শুক্রবার | ১০ই জুলাই, ২০২০ ইং

বলিউডে ঢাকার মিথিলা

মঙ্গলবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২০ | ১০:৩০ পূর্বাহ্ণ | 41 বার

বলিউডের ছবিতে অভিনয় করছেন বাংলাদেশের মডেল তানজিয়া জামান মিথিলা। এত দিন বাংলাদেশের বিজ্ঞাপনচিত্রে মডেল হয়েছিলেন তিনি। প্রথম সিনেমাটিই করলেন ভারতে। গত বছরের ১ ডিসেম্বর চুপি চুপি ‘রোহিঙ্গা’ নামে একটি সিনেমায় শুটিং শুরু করেন তিনি।

মাসখানেক শুটিং করার পর মিথিলা জানিয়েছেন নিজের ছবিটি প্রসঙ্গে। পরিচালক ভারতের হায়দার খান মূলত আলোকচিত্রী। আলোকচিত্রী ও মডেলের যেভাবে পরিচয়, সেভাবেই তাঁদের চেনাজানা। বলিউডের ‘দাবাং’, ‘কমান্ডো’, ‘দঙ্গল’ ছবিতে সহকারী পরিচালক হিসেবে কাজ করেছেন হায়দার। গত বছরের জুন মাসে ‘রোহিঙ্গা’ ছবির জন্য লুক টেস্ট দিতে ডেকেছিলেন মিথিলাকে। টেস্টে উতরে যান মিথিলা। কদিন আগে মিথিলার শুটিং–পরবর্তী লুক প্রকাশিত হয়। মিথিলা ফেসবুকে সেটি শেয়ার করে নিজের উচ্ছ্বাসের কথা জানান।

প্রথম আলোকে মিথিলা বলেন, ‘বছরখানেক আগে এক বন্ধুর মাধ্যমে হায়দার খানের সঙ্গে পরিচয়। তাঁর সঙ্গে একটি পণ্যের ফটোশুটে অংশ নিই। তা ছাড়া আমাকে প্রায়ই ফটোশুটের কাজে ভারতে যেতে হতো। প্রথম দেখায় তিনি আমাকে বলেছিলেন, “তোমারা চেহারাটা ইউনিক। আমি তোমার সঙ্গে কাজ করতে চাই।” আমিও বলেছিলাম, অবশ্যই। এর কিছুদিন পরই প্রথম কাজের প্রস্তাবটি দেন তিনি। নানা কাজের ব্যস্ততায় তখন সময় বের করতে পারিনি। তবে সেদিন দুষ্টুমি করে বলেছিলেন, “তোমার সঙ্গে কাজ আমি করবই করব।” অবশেষে মাস ছয়েক আগে এই ছবিতে কাজের ব্যাপারটি চূড়ান্ত হয়।’

১ ডিসেম্বর ভারতের আসামে শুটিং করতে গিয়ে মিথিলা জানতে পারেন, ‘রোহিঙ্গা’ নামের ছবিটির গল্প তাঁকে কেন্দ্র করেই লেখা। কিন্তু রোহিঙ্গা হিসেবে পর্দায় তাঁকে কীভাবে দেখানো হবে, সেটা ভেবে তিনি অবাক হন। তিনি বলেন, ‘আমাকে স্ক্রিন টেস্টের জন্য ডাকা হয়। যেতে পারিনি। তিনি ছিলেন নাছোড়বান্দা। চিত্রনাট্যের একটা ছোট্ট অংশ পড়ে ভিডিও করে পাঠাতে বললেন। পাঠালাম। সেটা দেখে বললেন, “… নাহ্‌ তোমাকে নিয়ে আমি অনেক বেশি প্রত্যাশা করেছিলাম, কিন্তু তুমি…আমার প্রত্যাশার চেয়ে বেশি ভালো করেছ।” শোনার পর আমি তো জোরে চিৎকার…। শুটিংয়ের প্রথম দিন পরিচালকসহ ইউনিটের সবাই বলছিল, আমাকে নাকি মনীষা কৈরালার তরুণ সময়ের মতো দেখাচ্ছিল। এটা ছিল আমার জন্য অনেক বড় প্রাপ্তি।’

‘রোহিঙ্গা’ ছবিতে মিথিলার বিপরীতে অভিনয় করেছেন ‘মিস্টার ভুটান’ স্যাঙ্গে। প্রথম দিন শুটিংয়ের অভিজ্ঞতার কথা জানতে চাইলে মিথিলা বলেন, ‘অনেক ভয় লাগছিল। স্ক্রিপ্ট ভুলে যাচ্ছিলাম। অনেক বেশি কনফিউজড ছিলাম। ফ্লাইট থেকে নেমেই শুটিং স্পটে যেতে হয়েছিল। শুটিং শুরু করার আগে সহশিল্পীর সঙ্গে মাত্র এক ঘণ্টা মহড়ার সুযোগ পেয়েছিলাম। তবে আমাকে আগে স্ক্রিপ্ট পাঠানো হয়েছিল। তখন নিজের মতো করে পড়েছিলাম।’

মিথিলা জানান, বলিউডের ভিন্নধারার একটি ছবি হতে যাচ্ছে ‘রোহিঙ্গা’। এই ছবিতে তিনি রোহিঙ্গা তরুণী হুসনে আরার চরিত্রে অভিনয় করবেন। আরাকান ও হিন্দি—দুই ভাষায় কথা বলতে দেখা যাবে তাঁকে। এ ক্ষেত্রে মিথিলার হিন্দি ভাষায় পারদর্শিতা কাজে দিয়েছে। তবে শুটিংয়ের সময় একজন অনুবাদকও রাখা হয়েছিল। মিথিলা বলেন, ‘বাংলাদেশের রোহিঙ্গা ইস্যু এ ছবির উপজীব্য নয়। এমনকি কোনো রাজনীতিও এ ছবিতে দেখানো হবে না। ছবিতে মূলত একজন রোহিঙ্গা মেয়ের ভালোবাসার গল্প দেখানো হয়েছে। কেন্দ্রীয় চরিত্রে আমি কাজ করছি। বাকি দশ শতাংশের কাজ মানালি ও ত্রিপুরায় হবে।’

‘রোহিঙ্গা’ ছবিটি নির্মিত হচ্ছে বলিউডের লায়ন প্রোডাকশনের ব্যানারে। মিথিলার নায়ক ‘মিস্টার ভুটান’ স্যাঙ্গে আগে ভুটানের একাধিক ছবিতে কাজ করেছেন। বলিউডের সিনেমাতেও তাঁকে দেখা গেছে। সামনের ঈদে সালমান খানের মুক্তিপ্রতীক্ষিত ছবি ‘রাঁধে’-তে খলচরিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। ২০২০ সালের মাঝামাঝি সময়ে ‘রোহিঙ্গা’ ছবিটি মুক্তি পেতে পারে।

It's only fair to share...Share on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn

সর্বশেষ সংবাদ
ফেইসবুক পাতা