আজ বুধবার| ২৭শে জুলাই, ২০২১ ইং| ১৩ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
আজ বুধবার | ২৭শে জুলাই, ২০২১ ইং

শরীয়তপুর ডামুড্ডা প্রবাসী স্বামী স্ত্রীকে কোঠাল দিয়ে কুপিয়ে হত্যা

বুধবার, ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ | ৫:৩১ পূর্বাহ্ণ | 156 বার

শরীয়তপুর ডামুড্ডা প্রবাসী স্বামী স্ত্রীকে কোঠাল দিয়ে কুপিয়ে হত্যা

শরীয়তপুর ডামুড্ডা প্রবাসী স্বামী স্ত্রীকে কোঠাল দিয়ে কুপিয়ে হত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদন

শরীয়তপুর ডামুড্ডা উপজেলায় স্ত্রীকে হত্যা করে ফেসবুক লাইভে এসে গান গেয়েছে ঘাতক স্বামী।আজ মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০টার দিকে ডামুড্ডা উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের দক্ষিণ পাড়ায় এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনাটি ঘটেছে।
পুলিশ সূত্রে জানা যায়, শরীয়তপুরের ডামুড্যায় পারিবারিক কলহের জেরে আমেনা বেগম (৩৬) নামের এক গৃহবধূকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় স্বামী নজরুল ইসলাম মাদবর (৪০) কে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ১৫০ শয্যার শরীয়তপুর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ১৫ বছর আগে ইসলামপুর ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের দক্ষিণ পাড়া গ্রামের মৃত হোসেন মাদবরের ছেলে নজরুল ইসলাম মাদবরের সঙ্গে একই ইউনিয়নের গঙ্গেসকাঠি গ্রামের মৃত আজিদ আলী মাদবরের মেয়ে আমেনা বেগমের বিয়ে হয়। দাম্পত্য জীবনে তাদের নয়ন মাদবর নামে ১২ বছর বয়সী একটি ছেলে রয়েছে। সে ঢাকায় একটি মাদরাসায় পড়াশোনা করে।

নজরুল ইসলাম মাদবর মালয়েশিয়ায় রাজমিস্ত্রির কাজ করতেন। সেখানে কাজ করা অবস্থায় ছাদ থেকে পড়ে তার দুই পা ভেঙে যায়। সুস্থ হয়ে করোনা মহামারির সময় ৭ মাস আগে দেশে চলে আসেন। স্ত্রীসহ তিনি শরীয়তপুরের ডামুড্যার বাড়িতেই থাকতেন। ছেলে নয়ন ঢাকার একটি মাদরাসায় পড়াশোনা করে। সে ঢাকায়ই থাকে।

হত্যাকাণ্ডের সময় নজরুল ইসলামের একতলা ভবনের কক্ষে তার স্ত্রী একা ছিল আর কেউ ছিল না। এ সুযোগে কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে স্ত্রী আমেনা বেগমকে হত্যা করে ঘাতক স্বামী নজরুল ইসলাম। শরীরের বিভিন্ন স্থানে কুড়াল দিয়ে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে আমেনা বেগমকে নৃশংস ভাবে হত্যা করা হয়।হত্যার পর ফেসবুক লাইভে এসে নজরুল তার স্ত্রী আমেনা বেগমকে খাটের ওপর তোশক দিয়ে মোড়ানো অবস্থায় দেখান। এক পর্যায়ে তাকে গান গাইতে শোনা যায়, ‘আমার খাইয়া, আমার পইরা ডুব দিছে ভাই অন্য জনরে।’
লাইভ দেখার পর বিষয়টি জানাজানি হলে নজরুল ইসলামের মা আনার কলি (৮০), ভাগ্নি সোহাদি আক্তার (২৫), ছোট ভাইয়ের স্ত্রী আছিয়া বেগমসহ (২৩) প্রতিবেশীরা দরজা পেটাতে থাকেন। কিন্তু নজরুল ইসলাম দরজা খোলেননি। পরে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পুলিশ এসে দরজা খুলে তাকে গ্রেপ্তার।এলাকাবাসী ফজলে মাদবর বলেন, আমেনা খুবই ভালো একজন নারী ছিলেন। নজরুল একজন মাদকাসক্ত।শরীয়তপুরের পুলিশ সুপার (এসপি) এস এম আশরাফুজ্জামান বলেন, স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যার দায়ে ঘাতক স্বামী নজরুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ঘটনায় মৃতের ভাই বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন।

It's only fair to share...Share on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn

সর্বশেষ সংবাদ
ফেইসবুক পাতা