আজ রবিবার| ১২ই জুলাই, ২০২০ ইং| ২৮শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
আজ রবিবার | ১২ই জুলাই, ২০২০ ইং

শরীয়তপুর বিনোদপুর এলাকায় খাল খনন কাজে চাঁদা না দেয়ায় হামলা এক্সেভেটর মেশিন ভাংচুর

বৃহস্পতিবার, ১৪ মে ২০২০ | ৫:৩১ অপরাহ্ণ | 95 বার

শরীয়তপুর বিনোদপুর এলাকায় খাল খনন কাজে চাঁদা না দেয়ায় হামলা এক্সেভেটর মেশিন ভাংচুর

শরীয়তপুর সদর উপজেলার বিনোদপুর এলাকায় খাল খনন কাজে চাঁদা না দেয়ায় হামলা করে ভ্যেকু এক্সেভেটর মেশিন ভাংচুর করেছে । এ সময় ভ্যেকু এক্সেভেটর চালককে বেদম মারপিট করে গুরুতর আহত করেছে। এ ঘটনায় পালং থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।
ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের কবির হোসেন ঢালি জানান, শরীয়তপুর সদর উপজেলার বিনোদপুর জনুল্যা মাদবর কান্দি গ্রামে পানি উন্নয়ন বোর্ডের সরকারী খাল খনন কাজ চলছে। এ সময় স্থানীয় কতিপয় চাদাবাজ ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের লোকজনের নিকট চাদা দাবী করে। চাদা দিতে অস্বীকার করায় তারা ক্ষুদ্ধ হয়। এ দিকে খাল খনন কাজ প্রায় শেষের দিকে খালের এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রানেত ভ্যেকুমেশিন সরিয়ে নেয়ার জন্য ভ্যেকু চালক পারভেজ গত বুধবার রাত অনুমান ১০টায় ভ্যেকু মেশিন জনুল্যা মাদবর কান্দি এলাকা থেকে সরিয়ে নিতে গিয়ে মেশিন চালু দিলে মেশিনের শব্দ শুনে হানিফ বেপারী ,নুরহোসেন মাদবর ,জলিল মাদবর, রাজিব মাদবর ,জসিম মাদবর ও রুবেল মাদবর সহ প্রায় ২০ /৩০ জন লোক দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে মেশিনের সামনে এসে মেশিন সরিয়ে নিতে বাধা দেয়। এ সময় মেশিনের উপর হামলা চালিয়ে মেশিনের ব্যাপক ভাংচুর করে। হামলাকারীরা মেশিন চালক পারভেজ কে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেছে। তারা চালকের পকেটে থাকা ১লাখ ২০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। খবর পেয়ে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের লোকজন তাকে উদ্ধার কওে বৃহস্পতিবার সকালে শরীযতপুর সদও হাসপাতালে ভর্তি করেছে। এ ব্যপারে পালং মডেল থানায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

ভ্যেকু চালক পারভেজ বলেন, খাল খনন কাজের শুরুতেই আমাদের থেকে কতিপয় লোকজন চাদা চায়।আমরা কোন চাদা দিতে রাজি হইনি। তাই তারা ক্ষুদ্ধ হয়ে বুধার রাতে আমাদেও মেশিন সরিয়ে আনতে গেলে হামলা কওে াামাকে মারপিট করে। আমার থেকে ১লাখ ২০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয় । তারা ভ্যেকু মেশিন ভাংচুর করে।

নুুরহোসেন মাদবর বলেন, খাল খনন করতে এসে ঠিকাদার আমাদেও গাছপালঅ ও বাসের ক্ষতি করেছে। আমরা তার থেকে ক্ষতি পূরন চেয়েছি। সে ক্ষতি পূরন না দিয়ে রাতের আধাওে মেশিন নিয়ে চলে যাচ্ছিল। আমরা বাধা দিয়েছি। কোন মারা মারি হয়নি।

এ ব্যাপারে ঠিকাদার ফারুক আহম্মেদ চৌকিদার বলেন, কতিপয় চাদাবাজরা খাল খননের কাজে কাজের শুরুতেই চাদা দাবী করে আসছিল আমি তাদের চাদা না দেয়াতে তারা আমার ভ্যেকু চালক কে মারপিট করে আহত করেছে। তারা আমার ভ্যেকু মেশিন ভাংচুর করেছে। এ সময় চালকের কাছ থেকে ১লাখ ২০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। আমি চাঁদাবাজের বিচার চাই।

পালং মডেল থানার ওসি মোঃ আসলাম উদ্দিন বলেন, ঘটনার অভিযোগ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পরিদর্শন করেছে। তদন্তের মাধ্যমে প্রকৃত ঘটনা জেনে আইন গত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

It's only fair to share...Share on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn

সর্বশেষ সংবাদ
ফেইসবুক পাতা