আজ শুক্রবার| ১০ই জুলাই, ২০২০ ইং| ২৬শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
আজ শুক্রবার | ১০ই জুলাই, ২০২০ ইং

১০ টাকা কেজি চালের কার্ড নিয়ে সংঘর্ষে শরীয়তপুর গোসাইরহাট একজন নিহত

শুক্রবার, ০৮ মে ২০২০ | ৬:০০ অপরাহ্ণ | 70 বার

১০ টাকা কেজি চালের কার্ড নিয়ে সংঘর্ষে শরীয়তপুর গোসাইরহাট একজন নিহত

শরীয়তপুরের গোসাইরহাট উপজেলায় বিল্লাল হোসেন ব্যাপারী (৪০) নামে এক কৃষককে রড দিয়ে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার (৭ মে) রাতে গোসাইরহাট পৌরসভার বিনোটিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত বিল্লাল হোসেন ব্যাপারী গোসাইরহাট পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের বিনোটিয়া গ্রামের মান্নান ব্যাপারীর ছেলে।গোসাইরহাট থানা পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার (৭ মে) সকালে সরকারের ১০ টাকা কেজি চালের কার্ড নিয়ে বিল্লাল হোসেন ব্যাপারী ও তার প্রতিবেশী কাদির ব্যাপারীর মধ্যে গোসাইরহাট পৌরসভার বিনোটিয়া এলাকায় বাগবিতন্ডা হয়। তখন স্থানীয় লোকজন তাদের বিষয়টি মীমাংসা করে দেয়।

রাত ৮টার দিকে কাদির ব্যাপারী, তার ছেলে ফেরদৌস ব্যাপারী, চাচাতো ভাই মো. শাজাহান ব্যাপারী, ভাতিজা আনিছ ব্যাপারী, আমিন উদ্দিন ব্যাপারীসহ ৮/১০ জন মিলে বিনোটিয়া গ্রামের লিটন রাড়ীর স্যানিটারির দোকানের সামনে বিল্লাল হোসেন ব্যাপারীকে রড দিয়ে পিটিয়ে ও কিল ঘুষি মেরে আহত করেন। গুরুতর আহত অবস্থায় চিকিৎসার জন্য তাকে গোসাইরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনার সময় তার ছোট ভাই হোসেন ব্যাপারীকেও পিটিয়ে আহত করা হয়। এ ঘটনায় আটজনকে আসামি করে গোসাইরহাট থানায় হত্যা মামলা করেছেন নিহত বিল্লাল হোসেন ব্যাপারীর ভাই হাসান ব্যাপারী।গোসাইরহাট পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. হুমায়ন সিকদার বলেন, কাদির ব্যাপারী বলেন ১০ টাকা কেজির চালের কার্ড পাইনি, বিল্লাল ব্যাপারী বলেন আপনি পেয়েছেন। এ নিয়ে দুজনের মধ্যে তর্ক হয়। পরে কাদির ব্যাপারীর লোকজন পিটিয়ে ও কিল ঘুষি মেরে বিল্লাল ব্যাপারীকে হত্যা করেন। হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক বিচার হওয়া উচিত।গোসাইরহাট থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোল্লা সোহেব আলী বলেন, এ ঘটনায় নিহতের ভাই হাসান বাদী হয়ে আটজনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা করেছেন। আসামিদেরকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

It's only fair to share...Share on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn

সর্বশেষ সংবাদ
ফেইসবুক পাতা