আজ শুক্রবার| ২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং| ১০ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
আজ শুক্রবার | ২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

ঘড়িসার সিংহলমুড়ি পাওনা টাকা চাওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে বড় দুই ভাই ভাবি ও ভাতিজাকে কুপিয়ে জখম

বৃহস্পতিবার, ৩০ এপ্রিল ২০২০ | ৬:১১ অপরাহ্ণ | 1985 বার

ঘড়িসার সিংহলমুড়ি পাওনা টাকা চাওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে বড় দুই ভাই ভাবি ও ভাতিজাকে কুপিয়ে জখম

শরীয়তপুর নড়িয়া উপজেলা ঘড়িসার সিংহলমুড়ি গ্রামে ছোট ভাইয়ের কাছে পাওনা টাকা চাওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে বড় দুই ভাই ভাবি ও ভাতিজাকে কুপিয়ে জখম করেছে ছোট ভাই। এই ঘটনা ঘটে ৩০ এপ্রিল ২০২০ আনুমানিক দুপুর দুইটার দিকে বড় ভাই কুদ্দুস মান পিতা মোহছেন মাল তার আপন ছোট ভাইয়ের কাছ থেকে পাওনা ২ লক্ষ টাকা চাইতে গেলে ছোট ভাই ক্ষিপ্ত হয়ে টাকার কথা অস্বীকার করেন এ নিয়ে কথা কাটাকাটি হয় একপর্যায়ে ছোট ভাই আলী মাল ঘর থেকে ধারালো রামদা বের করে বড় ভাইকে কোপ দিয়ে জখম করে বড় ভাইয়ের চিৎকার শুনে তার ছেলে আফজাল স্ত্রী সাহিদা বেগম মেজ ভাই সুজন মাল ছুটে আসলে পাষণ্ড সন্ত্রাসী আলী মাল তাদের উপর হামলা চালায় দা দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। গ্রামের মানুষ পরে তাদের উদ্ধার করে নড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায় সেখানে কর্তব্যরত ডাক্তার উন্নত চিকিৎসার জন্য সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন। এ বিষয়ে কুদ্দুস মাল বলেন আজ থেকে প্রায় ৮মাস আগে ছোট ভাই আলীকে ২লক্ষ্য টাকা ধার দেন সে ধারের পাওনা টাকা চাইতে গেলে টাকা না দেওয়ার কথা বলে উচ্চস্বরে গালিগালাজ করে এমতাবস্থায় ওকে সাবধান করতে গেলে ঘর থেকে রামদা এনে আমার ভাই আলী ও তার স্ত্রী ময়না বেগম আমার মাথায় আঘাত করে , পরে আমার চিৎকার শুনে আমার ছেলে আমার স্ত্রী ও আমার মেজ ভাই ছুটে আসলেন ও সবাইকে দা দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। ঘটনা বিষয় থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। ঘটনার বিষয় নড়িয়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন নড়িয়া উপজেলা ঘড়িসার ইউনিয়ন সিংহলমুড়ি গ্রামে আলী মাল নামের এক বখাটে তার আপন দুই ভাই ভাবি ভাতিজাকে কুপিয়ে জখম করেছে তারা গুরুতর আহত অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি আছে আমরা থানায় অভিযোগ নিয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

It's only fair to share...Share on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn

সর্বশেষ সংবাদ
ফেইসবুক পাতা