আজ রবিবার| ১২ই জুলাই, ২০২০ ইং| ২৮শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
আজ রবিবার | ১২ই জুলাই, ২০২০ ইং

শরীয়তপুর লকডাউনে কর্মহীন মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছে সেনাবাহিনী।

মঙ্গলবার, ২৮ এপ্রিল ২০২০ | ৫:০০ অপরাহ্ণ | 60 বার

শরীয়তপুর লকডাউনে কর্মহীন মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছে সেনাবাহিনী।

শরীয়তপুর লকডাউনে কর্মহীন মানুষের মাঝে উপহার পৌঁছে দিচ্ছে সেনাবাহিনী


বৃষ্টিস্নাত দিনেও নিম্ন মধ্যবিত্ত ও অসহায় দরিদ্র পরিবারের ঘরে ঘরে খাদ্য সহায়তা পৌঁছানোর ব্যবস্থা করেন সেনাবাহিনী। শরীয়তপুর সদর উপজেলার আংগারিয়া এলাকায় নিম্ন মধ্যবিত্ত ও অসহায় দরিদ্রের ঘরে খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দিচ্ছেন সেনা সদস্যরা।
মঙ্গলবার (২৮ এপ্রিল) ২৮ ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্ট সেন্টারের উদ্যোগে এ খাদ্য সহায়তার উপহার বিতরণ কার্যক্রম পরিচালিত হয়েছে।

এই উপহার সামগ্রী পৌঁছানোর ব্যবস্থা করেন২৮ ইস্টবেঙ্গল রেজিমেন্টের ক্যাপ্টেন মোহাম্মদ রকিবুল আলম ও ৮ ইঞ্জিনিয়ার ব্যাটেলিয়ানের ক্যাপ্টেন ফাইজুল আলম রাব্বি। তারা বলেন আমাদের উর্দ্ধতন কর্মকর্তার আদেশ অনুযায়ী আমাদের এই খাদ্য সহায়তা কার্যক্রম অব্যাহত থাকে।এ সময় উপস্থিত ছিলেন সেনাবাহিনীর সাথে স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে নিলয় ভট্টাচার্য, সমীর চন্দ্র শীল, এস এম স্বাধীন, শাহিন মৃধা এবং সৈকত দত্ত।২৮ ইস্টবেঙ্গল রেজিমেন্টেরে কমান্ডিং অফিসার লেফটেন্যান্ট কর্নেল সামি – উদ – দৌলা চৌধুরী বলেন , ” এটা কোন সাহায্য নয় , এটা তাদের প্রাপ্য ” আমরা আমাদের মতাে করে বিভিন্ন এলাকা থেকে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে তথ্য নিয়ে প্রকৃত লােকদেরকে তাদের প্রাপ্য পৌঁছে দেয়ার চেষ্টা করছি । তারই ধারাবাহিকতায় প্রতিনিয়ত আমরা মাঠে কাজ করছি । বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে ঘুরে এদের তথ্য নেই তারপরে বাড়িতে গিয়ে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেই । আমরা চাই প্রকৃত যে পাওয়ার সেই এই পাক । ইতিমধ্যে আমরা শরীয়তপুর জেলার বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে ঘুরে খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দিয়েছি । এদের মধ্যে অনেকেই আছেন মধ্যবিত্ত ও নিম্ন মধ্যবিত্ত এবং একেবারে অসহায় দুস্থ পরিবার । যারা মধ্যবিত্ত ও নিম্ন মধ্যবিত্ত এরা আসলে সবচাইতে বেশি অসহায় । তারা বলতেও পারছে না , চলতেও পারছেনা । আবার কিছু আছে একেবারেই অসহায় যাদেরকে কছে এখনও কোন খাদ্য সহায়তা পৌছেনি । এসব লােক গুলােকে খাদ্য সবার আগে প্রাধান্য দিচ্ছি । গত কয়েকদিনের খুঁজে পাওয়া এরকম বেশ কিছু পরিবারের মাঝে গতকাল আমরা বাড়ি গিয়ে খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দিয়ে আসছি ।

It's only fair to share...Share on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn

সর্বশেষ সংবাদ
ফেইসবুক পাতা